সিলেটে সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৪জন ও গাড়ি চালক নিহত

সিলেটের ওসমানী নগরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে একটি প্রাইভেট কার ও বাসের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের ৪জন ও গাড়ি চালক নিহত হয়েছেন।
আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
স্থনীয়রা জানান, ওসমানী নগর থানার চাঁদপুর নামক স্থানে সিলেটগামী একটি প্রাইভেটকারের সথে কুমিল্লাগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। নিহতের মধ্যে ১জন নারী, ৪জন পুরুষ।
নিহতরা হচ্ছেন- সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার শ্যামারচর গ্রামের স্বপন কুমার দাস (৪৫) তাঁর স্ত্রী লাভলী রানী সরকার (৩৬), জমজ দুই ছেলে শৈবাল দাস ও সৌমিত্র দাস (৮) এবং প্রাইভেটকার চালক আব্দুল হাশেম। কার চালকের বাড়ি মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ এলাকায়।
এদিকে নিহত পরিবারে আরেক সন্তান সৌরভ দাস (১৭) গুরুতর আহত অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।
সিলেট হাইওয়ে পুলিশের ওসি মায়নুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ঢাকা সিলেট হাইওয়ের ওসমানী নগর থানার চাঁদপুর নামক স্থানে শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে কুমিল্লাগামী ‘কুমিল্লা ট্রান্সপোর্ট’র একটি বাসের সাথে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি প্রাইভেট কারের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে পাঁচজন মারা যান। গুরুতর আহত একজনকে ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
বাসের সঙ্গে ধাক্কা লেগে প্রাইভেট কারের অর্ধেকটা বাসের সামনের দিকে ঢুকে যায় বলেও জানান ওসি।
নিহত স্বপন কুমার দাস ব্রাকের একজন কর্মকর্তা। চাকরির সুবাদে তিনি শ্রীমঙ্গল উপজেলার কমলগঞ্জে স্বপরিবারে থাকতেন। ঈদের ছুটিতে পরিবারকে নিয়ে বাড়ি যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
এদিকে, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করে। দুর্ঘটনা কবলিত প্রাইভেট কার ও বাসটি আটক করে হাইওয়ে পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

ফেসবুকে আমরা..