বিদেশ ফেরত ও আটকেপড়া কর্মীদের নিবন্ধনের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার

বিদেশ ফেরত ও আটকেপড়া কর্মীদের নিবন্ধনের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ জানানো হয়েছে, ‘বিদেশ থেকে ছুটি কাটাতে দেশে আসা কর্মীদের অনেকেই কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে সময় মত কর্মস্থলে ফেরত যেতে পারেননি। ইতোমধ্যে অনেক কর্মীর ভিসা/ইকামা/ওয়ার্ক পারমিটের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে আন্তমন্ত্রণালয় সমন্বয়ের মাধ্যমে বিদেশ প্রত্যাগমনেচ্ছু কর্মীদের ভিসা/ইকামার মেয়াদ বৃদ্ধি এবং ফ্লাইটের সংখ্যা বাড়ানোর বিষয়ে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।’
অদূর ভবিষ্যতে এ সকল বিষয়ে কার্যকর কুটনৈতিক প্রচেষ্টাসহ বিদেশ ফেরত ও আটকেপড়া কর্মীদের সহযোগিতা প্রদানের লক্ষ্যে ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা গ্রহণের জন্য প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এ ধরণের সকল কর্মীর নিবন্ধনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।
এ প্রক্রিয়ায় প্রাপ্ত তথ্য কূটনৈতিক তৎপরতা ও প্রাসঙ্গিক কার্যক্রম গ্রহণে সহায়ক হবে। বিদেশ প্রত্যাবর্তনে ইচ্ছুক এ ধরনের সকল কর্মীকে অবিলম্বে বিএমইটির ওয়েবসাইটের লিংকে (www.old.bmet.gov.bd/BMET/returnMigrant) অনলাইন রেজিষ্ট্রেশন করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। যে কোনো স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটার থেকে এই রেজিষ্ট্রেশন করা সম্ভব। রেজিষ্ট্রেশনের জন্য কোন প্রকার ফি প্রদান করতে হবে না।
এ বিষয়ে প্রয়োজনে নিকটস্থ জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসে (ডিইএমও) যোগাযোগ করা যেতে পারে। ডিইএমও সংক্রান্ত তথ্যের জন্য বিএমইটির ওয়েবসাইট (www.bmet.gov.bd) ভিজিট করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

ফেসবুকে আমরা..