ব্রেকিং নিউজ :
‘অনিশ্চিত সময়’ মোকাবেলায় মিউজিক ভিডিও প্রকাশ বাংলাদেশী-মার্কিন বিজ্ঞানীর ওআইসির পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের বৈঠক আগামীকাল ফেনীতে লাইসেন্স ও অনুমোদনহীন ওষুধ বিক্রি করায় জরিমানা সিলেট বিভাগে ২৪ ঘন্টায় করোনায় সুস্থ ৫৬ জন জানুয়ারি থেকে ইএফডিতে ভ্যাট পরিশোধকারীদের জন্য লটারি মেধা, জ্ঞান, বুদ্ধি ও মননকে দেশের কাজে লাগাতে সরকারি কর্মচারিদের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর আওয়ামী লীগে দুষ্টের দমন ও শিষ্টের লালন নীতি অনুসরণ করা হয় : ওবায়দুল কাদের সৌদি সহায়তায় ৮ বিভাগে আটটি ‘আইকনিক মসজিদ’ নির্মিত হবে : প্রধানমন্ত্রী শীঘ্রই ভুয়া অনলাইনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা : তথ্যমন্ত্রী তথ্য মন্ত্রণালয়ের নতুন সচিব খাজা মিয়া
  • আপডেট টাইম : 18/11/2020 07:29 PM
  • 10 বার পঠিত

২০০৯ সালে সফরকারী শ্রীলংকান ক্রিকেটারদের উপর সন্ত্রাসী হামলার পর প্রথম বারের মত পাকিস্তান সফর করতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল। ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি) আজ এ ঘোষনা দিয়েছে।
আগামী বছর ১৪ ও ১৫ অক্টোবর করাচিতে স্বাগতিক পাকিস্তানের বিপক্ষে দুটি টি-২০ ম্যাচে অংশ নিবে সফরকারী ইংলিশ ক্রিকেট দল। ইসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা টম হ্যারিসন এই সফরকে ‘দুই দেশের জন্য একটি গুরুত্বপুর্ন মুহুর্ত’ হিসেবে দেখছেন।
এক বিবৃতিতে হ্যারিসন বলেন,‘ আমি অত্যন্ত আনন্দ চিত্তে ঘোষণা করছি যে ২০২১ সালের অক্টোবরে পাকিস্তান সফরে যাবে ইংল্যান্ডের পুরুষ টি-২০ ক্রিকেট দল। ২০০৫ সালের পর এই প্রথম পাকিস্তান সফর করতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড। যেটি দুই দেশের জন্যই হবে গুরুত্বপুর্ন একটি মুহুর্ত।’এই সফরে দলটির সর্বোচ্চ নিরাপত্তাকেই সর্বাধিক গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন হ্যারিসন।
তিনি বলেন,‘ আমরা সব সময় আমাদের খেলোয়াড় ও স্টাফদের কল্যান ও নিরপত্তাকে প্রাধান্য দিয়ে থাকি। আমরা এই পরিকিল্পনার প্রয়োজনীয় গুরুত্বপুর্ন বিষয়গুলো নিয়ে পাকিস্তানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছি। বিশেষ করে দলের প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা বিষয়ে। কোভিড -১৯ মহামারি কালে এই সফর সুচিতে অবশ্যই পরিবর্তিত পরিস্থিতির বিষয়ে গুরুত্ব দেয়া হবে।’
পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান বলেন, সফরকারী দলকে প্রয়োজনীয় নিরপাত্তা প্রদানের আশ^াসে ইংল্যান্ড দল পাকিস্তান সফরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তিনি বলেন,‘ ২০২১ সালের ১৪ ও ১৫ অক্টোবর ইংল্যান্ড টি-২০ ক্রিকেট দলের এই পাকিস্তান সফরে আমাদের ক্রিকেট অনুরাগী সমর্থকরা আরো বেশী উৎসাহিত হবে।
এই জাতি ধৈর্য্য নিয়ে পাকিস্তানের টেকসই ক্রিকেট প্রত্যাবর্তনের জন্য অপেক্ষা করে আছে। ২০২১ সালে দক্ষিন আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের সফর সুচি এই নিশ্চয়তা দিতে সক্ষম হবে যে এখানে নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা যায়। গত দুই বছরে এই অগ্রগতি সাধিত হয়েছে। এই সময় বিভিন্ন ক্রিকেট বোর্ড ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলার পাশাপাশি আস্থা ও আত্মবিশ^াস বাড়ানোর দিকেও ঝুঁকেছিল বোর্ড। ইসিবির এই সফর সুচির নিশ্চয়তাই প্রমান করে পাকিস্তান সুরক্ষিত ও নিরাপদ।’
টি-২০ সিরিজটি হবে মূলত বিশ^কাপের পুর্ব প্রস্তুতি। কারণ অক্টোবর ও নভেম্বরে ভারতে অনুষ্ঠিত হবে টি-২০ ক্রিকেট বিশ^কাপ।
ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো করোনা প্রটোকলের শক্ত নিয়মনীতির মধ্যেই ইংল্যান্ড সফরে গিয়েছিল পাকিস্তান। যে কারণে পাকিস্তানের প্রতি আনুকুল্য প্রদর্শন করছে ইংল্যান্ড। ইংল্যান্ড সফরকালে পাকিস্তান স্বাগতিক দলের সঙ্গে তিনটি টেস্ট ম্যাচ, তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-২০ ম্যাচ খেলেছিল। ওয়াসিম খান বলেন,‘ আসলে সম্পর্কের কারণে ইসিবির পক্ষ থেকে এই ঘোষণাটি এসেছে। সংক্ষিপ্ত এই সফরে সম্মত হওয়ায় ইসিবিকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’
২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলংকান টিম বাসে সশস্ত্র বন্দুকধারীদের হামলার পর থেকে থমকে দাঁড়ায় পাকিস্তানের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আয়োজন। ওই ঘটনায় বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার ও কর্মকর্তা আহত হওয়ার পাশাপাশি মারা যায় নিরাপত্তায় নিয়োজিত আট ব্যক্তি।
এর আগে নিরপেক্ষ ভেন্যু সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলেছে ইংল্যান্ড। তবে পাকিস্তান ঘোষণা দিয়েছে ,ভবিষ্যতে তাদের সবগুলো সফর নিজেদের মাটিতে আয়োজন করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...