ব্রেকিং নিউজ :
বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতি সমৃদ্ধ করতে সকলের সহযোগিতা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সড়কে শৃংখলা রক্ষায় সরকারকে আরো উদ্যোগী হতে হবে : জি.এম. কাদের অপরাজনীতিবিদদের পৃষ্ঠপোষক, অর্থদাতাদের আইনের আওতায় আনতে হবে : বাহাউদ্দিন নাছিম বেগম খালেদা জিয়া দেশের বাইরে গেলে ফিরবেন না, এটা ভুল ধারণা: মির্জা ফখরুল দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো ৩৩ জনের মৃত্যু মেট্রোরেলের নির্মাণ কাজের সার্বিক অগ্রগতি ৬৩ শতাংশ : ওবায়দুল কাদের দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র-তৎপরতা বাড়াতেই খালেদা জিয়াকে বিদেশ নিতে চেয়েছিল বিএনপি : তথ্যমন্ত্রী বোরো ধান ১০ লাখ টন উৎপাদন বাড়বে : কৃষিমন্ত্রী ভারতে করোনায় আরো ৩ লাখ ২৯ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত বিশ্বকাপ ও ইউরোতে আত্মতুষ্টিতে না ভুগতে ফ্রান্সকে দেশ্যমের সতর্কতা
  • আপডেট টাইম : 01/12/2020 07:01 PM
  • 185 বার পঠিত

নারী অধিকার সংগঠন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ বলেছে, নারী ও শিশুর প্রতি সব ধরণের সহিংসতা বন্ধের মাধ্যমে জেন্ডার ভারসাম্য ও সমতা ভিত্তিক সমাজ-ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে গণমাধ্যমের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। গণমাধ্যম ইতোমধ্যে নারী ও শিশুদের বিরুদ্ধে নিপীড়ন, সহিংসতা ও নৃশংসতার সাথে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে রিপোর্টিং এর মাধ্যমে বহু মানুষকে আইনের আওতায় এনেছে এমন অনেক নজির সৃষ্টি করেছে বলে তারা উল্লেখ করেন। তারা আজ রাজশাহী নগরীর মুক্তিযুদ্ধ লাইব্রেরিতে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।
ইন্টারন্যাশনাল রিপ্রেশন প্রিভেনশন ফ্রটনাইট-২০২০ এন্ড ওয়াল্ড হিউম্যান রাইট্স ডে উপলক্ষে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের (বিএমপি) রাজশাহী জেলা সংগঠন এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। সংবাদ সম্মেলনে মূল স্লোগান ছিল ‘সম্ভ্রমহানি মানবতাবিরোধী জঘন্যতম অপরাধ। নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা বন্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।’
এতে মহিলা পরিষদের স্থানীয় শাখার সভাপতি কল্পনা রায়, শিখা রায়, অনুসূয়া সরকার, অলিমা খাতুন, নিলুফার আহমেদ ও আফরোজা খান হেলেনসহ সংগঠনের অন্যান্য নেত্ববৃন্দ বক্তব্য রাখেন।
কল্পনা রায় বলেন, নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা কমাতে ও বাল্য বিয়ে ও যৌতুক বন্ধ করতে সমাজের জনগনের মধ্যে বিশেষ করে পিতা-মাতা ও শিক্ষকদের সামাজিক সচেতনতা বাড়াতে হবে। তিনি বলেন, সরকার এককভাবে বা কোনো একক সংগঠন নারীর প্রতি সহিংসতা ও নিপীড়ন বন্ধ করতে পারবে না। এর জন্য সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দরিদ্র ও দুঃস্থ পরিবারের শিশুদের শিক্ষাসহ সব ধরনের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করার মাধ্যমে জাতীয় উন্নয়ন সম্ভব হবে। তিনি আরও বলেন, সহিংসতা ও বিষন্নতা থেকে তাদের রক্ষা করার মাধ্যমে শিশুদের শারিরীক ও মানসিক উন্নয়ন সম্ভবপর হরে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...