ব্রেকিং নিউজ :
বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতি সমৃদ্ধ করতে সকলের সহযোগিতা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সড়কে শৃংখলা রক্ষায় সরকারকে আরো উদ্যোগী হতে হবে : জি.এম. কাদের অপরাজনীতিবিদদের পৃষ্ঠপোষক, অর্থদাতাদের আইনের আওতায় আনতে হবে : বাহাউদ্দিন নাছিম বেগম খালেদা জিয়া দেশের বাইরে গেলে ফিরবেন না, এটা ভুল ধারণা: মির্জা ফখরুল দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো ৩৩ জনের মৃত্যু মেট্রোরেলের নির্মাণ কাজের সার্বিক অগ্রগতি ৬৩ শতাংশ : ওবায়দুল কাদের দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র-তৎপরতা বাড়াতেই খালেদা জিয়াকে বিদেশ নিতে চেয়েছিল বিএনপি : তথ্যমন্ত্রী বোরো ধান ১০ লাখ টন উৎপাদন বাড়বে : কৃষিমন্ত্রী ভারতে করোনায় আরো ৩ লাখ ২৯ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত বিশ্বকাপ ও ইউরোতে আত্মতুষ্টিতে না ভুগতে ফ্রান্সকে দেশ্যমের সতর্কতা
  • আপডেট টাইম : 26/04/2021 06:43 PM
  • 9 বার পঠিত

ভারতে করোনার পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় পরিবারের পাশে দাঁড়াতে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) চতুর্থদশ আসর মাঝপথ থেকে সড়ে দাঁড়ানোর সিদ্বান্ত নিয়েছেন দিল্লি ক্যাপিটালসের স্পিনার রবীচন্দ্রন অশ্বিন। পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অশ্বিন।
গতকাল সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে সুপার ওভারে ম্যাচ জয়ের পর টুইটারে টুইট করে সিদ্ধান্তটি জানান অশ্বিন। তিনি জানিয়েছেন, কোভিড-১৯ ভাইরাসের বিপক্ষে লড়ছে তার পরিবার। তাদের সমর্থন জানাতেই আইপিএল ছাড়ছেন ভারতের এ তারকা স্পিনার।
টুইটারে অশ্বিন লিখেন, ‘কাল থেকে আমি এ বছরের আইপিএলে আর খেলছি না। কোভিড-১৯ ভাইরাসের বিপক্ষে লড়ছে আমার পরিবার ও কাছের মানুষরা। এই কঠিন সময়ে আমি তাদের পাশে দাঁড়াতে চাই। পরিস্থিতির উন্নতি ঘটলে হয়তো ফিরবো।’
তিনি আরও লিখেন, ‘আমার দেশের অবস্থা দেখে হৃদয় ভেঙে যাচ্ছে। চিকিৎসেবার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের সঙ্গে তো আমি নেই। কিন্তু তাদের প্রতি অন্তর থেকে কৃতজ্ঞতা জানাই। সব ভারতীয়কে সাবধানে থাকার অনুরোধ রইল।’
অশ্বিনের সিদ্ধান্তের প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন তার ফ্র্যাঞ্চাইজি দিল্লি ক্যাপিটালস। দিল্লির পক্ষ থেকে টুইট করে জানানো হয়, ‘এই কঠিন সময়ে রবীচন্দ্রন অশ্বিনের প্রতি পূর্ণ সমর্থন রইল। দিল্লি ক্যাপিটালসের পক্ষ থেকে তুমি ও তোমার পরিবারের জন্য প্রার্থনা জানাই।’
দিল্লি ক্যাপিটালসের কোচ রিকি পন্টিং জানিয়েছেন, ‘ভারতে সংক্রমণ বেড়ে চললেও খেলোয়াড়েরা সবচেয়ে নিরাপদে আছেন।’
ভারতে এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাস সংক্রমণে ভয়াবহ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। প্রতিদিন গড় সংক্রমণের সংখ্যা প্রায় ৩ লাখ। সংক্রমণ ও মৃতের সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...