ব্রেকিং নিউজ :
দিনাজপুরে হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের সব হলে ‘ফার্স্ট এইড কর্ণার’ চালু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মিতসুবিশি কর্পোরেশন বৃত্তি প্রবর্তন বিএনপি ভুল রাজনীতির কারণে এখন চরম দুর্দিনের ছায়ায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়েছে : ওবায়দুল কাদের অর্ধেক জনবল দিয়ে ব্যাংক চালাতে হবে ‘বাংলাদেশ-ওমান বিজনেস ফোরাম’ গঠনে আগ্রহী ওমানের দূত মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের ১৯৮তম জন্মবার্ষিকী আগামীকাল পীরগঞ্জে স্পিকারের পক্ষে শীতবস্ত্র বিতরণ ইসি গঠনের দায়িত্ব মির্জা ফখরুলকে দিলেই কেবল বিএনপি খুশি হবে : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী বসিলায় ট্রাক টার্মিনাল উচ্ছেদ করে লাউতলা খাল খনন শুরু প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ বিলের রিপোর্ট সংসদে উপস্থাপনের সুপারিশ
  • আপডেট টাইম : 12/01/2022 07:29 PM
  • 20 বার পঠিত

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, টেকসই শান্তি ও নিরাপত্তার লক্ষ্য অর্জনে নারীদের সম্পূর্ণ ও অর্থবহ অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে।
সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের উদ্যোগে আজ রাজধানীর কুর্মিটোলা গলফ ক্লাবে আয়োজিত 'উইমেন পিস এন্ড সিকিউরিটি সেমিনার ২০২২' শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি  এ কথা বলেন। এসময় স্পিকার সেমিনারের উদ্বোধন করেন।
তিনি বলেন, চ্যালেঞ্জসমূহ উত্তরণ করে নিজ সক্ষমতা কাজে লাগিয়ে নারীরা বৈশ্বিক শান্তি ও নিরাপত্তা বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখতে পারে। পিবিসি জেন্ডার স্ট্রাটেজি বাস্তবায়ন, সশস্ত্র সংঘাত দূরীকরণ, শান্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে নারীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে আজকের সেমিনার উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন স্পিকার।
স্পিকার বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রত্যন্ত অঞ্চল পর্যন্ত নারীদের উন্নয়নে বহুমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। নারীদের সামাজিক, অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে বর্তমান সরকার নিরলস কাজ করছে। সংসদে বর্তমানে ২৩ জন সরাসরি নির্বাচিত নারী সংসদ সদস্যের পাশাপাশি ৫০ জন সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য রয়েছেন। নারীদের অধিকার প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি নারীদের অর্থনৈতিক কার্যক্রমে সম্পৃক্তকরণে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। লিঙ্গ বৈষম্য দূরীকরণ ও সমতা ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় নারীদের এগিয়ে নিতে সকলকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান স্পিকার।
ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, যেকোন দুর্যোগে নারীরা বৈষম্যের শিকার হয়ে থাকে। কোভিডকালীন সময়েও নারীরা অনেক দুর্ভোগ ও নির্যাতনের শিকার হয়েছে যা অপ্রত্যাশিত। নারী নির্যাতন, লিঙ্গ বৈষম্য ও সামাজিক অসমতাকে জোরালোভাবে প্রতিরোধ করা জরুরি। কেননা, অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক উন্নয়ন নারীদের পেছনে রেখে সম্ভব নয়। ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই সমতা ভিত্তিক বৈশ্বিক লক্ষ্য অর্জনে নারীরাই পরিবর্তনের সক্রিয় এজেন্ট।
সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপি বক্তব্য রাখেন। লেফটেনেন্ট জেনারেল ওয়াকারুজ্জামান, লেফটেনেন্ট জেনারেল মাহফুজুর রহমান, ড. মোঃ তৌহিদুল ইসলাম, ড. রাসেদ উজ জামান, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মসিউর রহমান, ড. রুবানা হক, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাজমা বেগম, সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি নাইমা হায়দার সেমিনারে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন।
অনুষ্ঠানে সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কর্মকর্তাগণ ও গণমাধ্যমকর্মীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...