ব্রেকিং নিউজ :
ভোলায় ‘মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান’ সফল করতে চলছে প্রচার-প্রচারণা ধর্মকে ব্যবহার করে কেউ যাতে জনগণকে বিভ্রান্ত করতে না পারে সেজন্য সকলকে সজাগ থাকার আহ্বান রাষ্ট্রপতির বিশ্ব শিক্ষক দিবসে সকল শিক্ষকের প্রতি তথ্যমন্ত্রীর শ্রদ্ধা জনগণই হচ্ছে আমাদের দেশের সবচেয়ে বড় শক্তি : পরিকল্পনা মন্ত্রী কুমিল্লায় অনিয়মের অভিযোগে ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা আগামীকাল সংবাদ সম্মেলন করবেন প্রধানমন্ত্রী বিএনপির মুখে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের কথা শোভা পায় না : ওবায়দুল কাদের স্মার্ট টেকনোলজি দেশকে আরও গতিশীল করবে : জাহিদ ফারুক দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে দু’জনের মৃত্যু আইসিসির ‘মাস সেরা’ পুরস্কারে মনোনীত বাংলাদেশের নিগার
  • আপডেট টাইম : 23/03/2022 05:26 AM
  • 137 বার পঠিত

মিয়ানমারের কারাগারে সাজাভোগকারী ৪১ জন বাংলাদেশী নাগরিককে আজ দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে আজ বুধবার মিয়ানমারের অভ্যন্তরে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সঙ্গে মিয়ানমার বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এ পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে তাদের দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।
বিজিবি’র এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ এ কথা জানানো হয়।
গত বছরের ৬ মে হতে এই ৪১ জন মিয়ানমারের বিভিন্ন কারাগারে মানবেতর জীবন যাপন করছিলেন। বিষয়টি জানতে পেরে বাংলাদেশ সরকারের স্বরাষ্ট্র, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বিজিবি এবং মিয়ানমারের সিতওয়েতে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের কনস্যুলেট দীর্ঘ এক বছর প্রচেষ্টা চালিয়ে এবং কূটনৈতিক তৎপরতার মাধ্যমে তাদের দেশে ফিরিয়ে আনার পদক্ষেপ গ্রহণ করে। তারই ধারাবাহিকতায় (বাংলাদেশ সময়) আজ সকাল পোনে ১০টা হতে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত মিয়ানমারের অভ্যন্তরে মংডু পয়েন্ট নামক স্থানে বিজিবি টেকনাফ ব্যাটালিয়নের (২ বিজিবি) অধিনায়ক এবং মিয়ানমার বিজিপি’র নম্বর (১) ব্রাঞ্চ অধিনায়ক, পিইন ফিউ, এর মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এ পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে আটক বাংলাদেশী নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।
উল্লেখ্য, এ পতাকা বৈঠকে ১৬ সদস্য বিশিষ্ট বিজিবি প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে দেন বিজিবি টেকনাফ ব্যাটালিয়নের (২ বিজিবি) অধিনায়ক লে. কর্ণেল শেখ খালিদ মোহাম্মদ ইফতেখার এবং বিজিপি’র ৯ (নয়) সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন মিয়ানমার বিজিপি’র নম্বর (১) ব্রাঞ্চ অধিনায়ক, পিইন ফিউ, লে. কর্ণেল কাও না ইয়াং শো। পতাকা বৈঠকে বাংলাদেশ-মিয়ানমারের সীমান্ত ব্যবস্থাপনার বিভিন্ন বিষয়ে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়। এছাড়াও উভয় দেশের পারস্পরিক সৌহার্দ্যপূর্ণ ও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক, উত্তরোত্তর উন্নতি এবং সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য উভয় দেশের প্রতিনিধি দল মতামত ব্যক্ত করেন।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশী নাগরিকরা বিভিন্ন সময়ে অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে প্রবেশের অপরাধে মিয়ানমারের কারাগারে সাজাভোগ করে আসছিল।
মিয়ানমার হতে ফেরত আনা ৪১ জনকে পুলিশের সহায়তায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং উপজেলা স্বাস্থ্যা কর্মকর্তার সমন্বয়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...