ব্রেকিং নিউজ :
সোশ্যাল মিডিয়ায় আওয়ামী লীগ বিরোধী অপপ্রচারের যথাযথ জবাব দিতে হবে : ছাত্রলীগকে প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রাইজ ফর ক্রিয়েটিভ ইকোনমি এর মনোনয়ন আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে জাপানি রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ ভুয়া ডাক্তারদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনায় হাইকোর্টের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী কাল কক্সবাজার জনসভায় বক্তৃতা দেবেন পরিবেশবান্ধব শিল্পায়ন বাস্তবায়নে কাজ করছে বেসরকারি খাত : এফবিসিসিআই সভাপতি সারাদেশের মতো সোহরাওয়ার্দী উদ্যানেও সরকার নিরাপত্তা দেবে : তথ্যমন্ত্রী বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী দিবসে সম্প্রীতি বাংলাদেশ’র শুভেচ্ছা বিএনপি’র সমাবেশের স্থান নিয়ে সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে : ওবায়দুল কাদের যশোর মুক্তদিবস পালিত
  • আপডেট টাইম : 06/11/2022 08:43 PM
  • 31 বার পঠিত

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বে বাংলাদেশ তথ্য ও প্রযুক্তি নির্ভর ডিজিটাল দেশে পরিণত হওয়ার ক্ষেত্রে সফলতা অর্জন করেছে।
তিনি আরো বলেন, সেই সফলতার ভিত্তিতে আমরা বাংলাদেশকে এখন ২০৪১ সালের মধ্যে টেকসই, জ্ঞান নির্ভর, সৃজনশীল, স্মার্ট দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই।
জুনাইদ আহমেদ পলক আজ রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারের বিসিসি মিলনাতনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের উদ্যোগে “আইসিপিসি ওয়ার্ল্ড ফাইনালস ঢাকা” নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন। আগামী ৮ নভেম্বর দুপুরে এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হবে। 
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের নেতৃত্বে আইসিপিসির ৪৫তম আসরের আয়োজন করছে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) এবং ‘ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক (ইউএপি)’।
জুনাইদ আহ্মেদ পলক বলেন, আইসিপিসি আইসিটিতে আমাদের সক্ষমতা প্রদর্শনের দারুণ একটি সুযোগ। একই সঙ্গে আমাদের দেশের ভবিষ্যৎ আইসিটি নেতৃত্বের বর্তমান নেতৃত্বের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করে দেওয়ারও একটি সুযোগ।
পলক আরও বলেন, " গত তের বছরে আইসিটি খাতে আমাদের অনেক উন্নতি হয়েছে। ১৩ বছর আগে আমাদের মাত্র ৫ মিলিয়ন ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ছিল যা এখন ১৩০ মিলিয়ন। কোন আইসিটি ইন্ডাস্ট্রি ছিল না, প্রযুক্তি খাতে রপ্তানি ছিল মাত্র ২৬ মিলিয়ন ডলার। এখন সফটওয়্যার, হার্ডওয়্যার এবং সার্ভিস সেক্টর থেকে সব মিলিয়ে প্রতি বছরে রপ্তানী ১ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে। 
প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, পরিসংখ্যান অনুযায়ী বাংলাদেশ অনলাইন সোর্স অব ওয়ার্কারের তালিকায় দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশ। 
সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, আইসিপিসি ফাউন্ডেশনের সভাপতি এবং আইসিপিসি নির্বাহী পরিচালক ড. উইলিয়াম বি. পাউচার, আইসিপিসির উপনির্বাহী পরিচালক ও আইসিপিসি ওয়ার্ল্ড ফাইনালস্ কনটেস্টের পরিচালক ড. মাইকেল জে. ডোনাহু, ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকের উপাচার্য ও আইসিপিসি ওয়ার্ল্ড ফাইনালস, ঢাকার পরিচালক অধ্যাপক কামরুল আহসান, হুয়াওয়ের কর্পোরেট কমিউনিকেশনস্ বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ড ভিকি ঝ্যাং, জেট ব্রেইনের বিনিয়োগ বিভাগের এসভিপি এবং গবেষণা ও শিক্ষা বিষয়ক বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট অন্ড্রে ইভ্যানভ এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি)’র নির্বাহী পরিচালক রণজিৎ কুমার।
এশিয়ার মধ্যে চীন, জাপান, থাইল্যান্ড এর পর ৪র্থ দেশ হিসেবে এবারই প্রথম বাংলাদেশ নামটি আইসিপিসি হোস্ট কান্ট্রি হিসেবে যুক্ত হচ্ছে। বিশ্ব আসরে বাংলাদেশ ১৯৯৮ সাল থেকে আইসিপিসিতে প্রতিযোগী হিসেবে অংশ গ্রহণ করে আসছে।
বাংলাদেশ থেকে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি, আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি-বাংলাদেশ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক থেকে মোট ৮ টি মেধাবী দল অংশ নিচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...