ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইয়ের জন্য ৩৬ সদস্যের প্রাথমিক দল

ফিফা কাতার বিশ্বকাপ ২০২২ ও এশিয়া কাপের বাছাইপর্বের বাকী চার ম্যাচের জন্য জাতীয় দল গঠনের ক্যাম্পের জন্য ৩৬ সদস্যের প্রথমিক দল ঘোষনা করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। স্কোয়াডে যুক্ত হয়েছে চার নতুন মুখ।
চার নতুন মুখ হিসেবে আছে ফিনল্যান্ডে-জন্মগ্রহন করা তারিক রায়হান কজী, মিডফিল্ডার নাজমুল ইসলাম রাসেল, বাংলাদেশ পুলিশের উইঙ্গার এসএম বাবলু ও উত্তর বারিধারা ক্লাবের ফরোয়ার্ড সুমন রেজা ।
ইনজুরি মুক্ত হয়ে এই দলে ফিরেছেন মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, আতিকুর রহমান ফাহাদ, স্ট্রাইকার নাবিব নাওয়াজ জীবন ও মিডফিল্ডার মাসুক মিয়া জনি।
বাফুফের সহ-সভাপতি ও জাতীয় দল ব্যবস্থাপনা কমিটির ডেপুটি চেয়ারম্যান তাবিথ আওয়াল বলেছেন, তারা জাতীয় দলের অনুশীলন ক্যাম্প শুরু করতে যাচ্ছেন। এই ক্যাম্প শুরুর আগে প্রধান কোচ জেমি ডে’র কাছ থেকে ৩৬ জনের এই তালিকা পেয়েছে বাফুফে।
তিনি আরো বলেন, স্কোয়াডের ৩০ অধিক খেলোয়াড় অন্তর্ভুক্ত করার কারণ হচ্ছে বাছাইপর্বের বাইরে দুটি ফিফা অনুশীলন ম্যাচ আয়োজনের পরিকল্পনা রয়েছে। অনুশীলনের সময় কোন খেলোয়াড় যদি অসুস্থ হলে যাতে বাকী খেলোয়াড়দের প্রস্তুত রাখা সম্ভব হয়।
এক মাস অনুশীলন করানোর পর ৩৬ জনের দল থেকে ৩০ জন এবং পরে ২৫ জনের দল বছাই করবেন প্রধান কোচ জেমি ডে। এরপর বাছাইপর্বের জন্য ২৩ সদস্যের চুড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষনা করা হবে বলে জানান তাবিথ আওয়াল।
এদিকে আগামী ৭ আগস্ট থেকে গাজীপুরের সাহারা রিসোর্টে শুরু হচ্ছে জাতীয় ফুটবল দলের কন্ডিশনিং ক্যাম্প। বাংলাদেশ দলের ২০২২ বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের ম্যাচকে সামনে রেখে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ৭ থেকে ৯ আগস্টের মধ্যে রিপোর্টিং করতে হবে খেলোয়াড়দের। ক্যাম্প শুরুর আগে ৩ থেকে ৫ আগস্টের মধ্যে প্রত্যেক খেলোয়াড়কে করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা করাতে হবে।
পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে ক্যাম্পে আসবেন তারা। আগামী ৭ আগস্ট থেকে শুরু হবে তাদের কন্ডিশনিং ক্যাম্প। মোট ৩০ জনের দল নিয়ে এ অনুশীলন চলবে ২১ আগস্ট পর্যন্ত। কেউ পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ হলে তাকে অনুশীলন করতে হবে না। তবে সবার পুনরায় পরীক্ষার ব্যবস্থা করবে বাফুফে।
এ জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে কথা বলে রাখবে ফেডারেশন। ফিফা ও এএফসির যে নির্দেশনা রয়েছে তা অনুসরণ করে পরীক্ষা করানো হবে। অনুশীলনে ৪-৫ জনের বেশি গ্রুপ থাকবে না।
ক্যাম্পে অনুশীলনের সময় কেউ করোনায় সংক্রমিত হলে তাকে আলাদা করে রাখা হবে। ১৪ দিনের প্রাথমিক ক্যাম্পের সফল সমাপ্তির পর ফুটবলারদের ছয় সপ্তাহের পুর্নাঙ্গ প্রশিক্ষনের আওতায় আনা হবে ৩০ খেলোয়াড়কে। প্রধান কোচের অধীনে ২১ আগস্ট থেকে শুরু হবে এই প্রশিক্ষন।
ফিফা বিশ^কাপ কাতার ২০২২ এর বাছাইপর্বের খেলা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৮ ও ১৩ অক্টোবর এবং ১২ ও ১৭ নভেম্বর। এসব ম্যাচে বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রতিপক্ষ যথাক্রমে আফগানিস্তান, কাতার, ভারত ও ওমান।
স্কোয়াড: তপু বর্মন, ইয়াসিন খান, বিশ^নাথ ঘোষ, আনিসুর রহমান, সুশান্ত ত্রিপুরা, আতিকুর রহমান ফাহাদ, তারিক রায়হান কাজী, রবিউল হাসান, বিপলু আহমেদ, মাহবুবুর রহমান সুফিল, মোহাম্মদ ইব্রাহিম, তাওহিদুল আলম সবুজ, মাসুক মিয়া জনি, শহিদুল আলম সোহেল, মতিন মিয়া, টুটুল হোসেন বাদশা, রায়হান হাসান, মামুনুল ইসলাম, সোহেল রানা, নাবিব নেওয়াজ জীবন, পাপ্পু হোসেন, রহমত মিয়া, ইয়াসিন আরাফাত, আরিফুর রহমান, রিয়াদুল হাসান, জামাল হোসেন ভুঁইয়া, স্বাদ উদ্দিন, ফয়সাল আহমেদ ফাহিম, রাকিব হোসেন, আশরাফুল ইসলাম রানা, মানিক হোসেন মোল্লা, এস এম মুঞ্জুরুর রহমান মানিক, মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, এমএস বাবলু, সুমন রেজা ও নাজমুল ইসলাম রাসেল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

ফেসবুকে আমরা..