ওসি প্রদীপ চট্টগ্রাম কারাগারে

প্রায় চার কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদকের দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার দেখাতে টেকনাফ থানার বরখাস্ত হওয়া ওসি ও সিনহা হত্যা মামলার আসামি প্রদীপকে চট্টগ্রাম কারাগারে আনা হয়েছে।
শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুর একটার দিকে তাকে চট্টগ্রামে নিয়ে আসা হয় বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মো. কামাল হোসেন।
তিনি জানান, দুর্নীতি দমন কমিশনের একটি মামলায় সোমবার প্রদীপকে চট্টগ্রাম আদালতে হাজির করার কথা রয়েছে। এজন্যই তাকে চট্টগ্রামে আনা হয়েছে।
জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে গত ২৩ আগস্ট প্রদীপ ও তার স্ত্রী চুমকির বিরুদ্ধে দুদকের চট্টগ্রাম জেলা সমন্বিত কার্যালয়-২ এর সহকারি পরিচালক মো. রিয়াজ উদ্দিন বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।
দুদকের মামলার প্রধান আসামি প্রদীপের স্ত্রী চুমকি। বরখাস্ত হওয়া ওসি প্রদীপ এ মামলায় দ্বিতীয় আসামি। ঘটনার পর থেকে স্ত্রী চুমকি পলাতক রয়েছে। তিনি যাতে দেশ ছেড়ে পালিয়ে যেতে না পারেন সে জন্য ব্যবস্থা নিতে পুলিশ সদর দপ্তরে চিঠি দিয়েছে দুদক।
মামলায় ৩কোটি ৯৫ লাখ ৫হাজার ৬৩৫ টাকা বরখাস্ত ওসি প্রদীপ ঘুষ-দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জন করেছেন বলে দুদক অভিযোগ এনেছে। আরও ১৩ লাখ ১৩ হাজার ১৭৫ টাকার সম্পদের তথ্য বিবরণীতে গোপন করার অভিযোগও আনা হয়েছে চুমকির বিরুদ্ধে।
দুদকের আইনজীবী মাহমুদুল হক মাহমুদ জানান, দুদকের দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার দেখানোর জন্য গত ২৭ আগস্ট মহানগর আদালতে আবেদন করা হয়েছে। চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুল আলম আসামি প্রদীপের উপস্থিতিতে ১৪ সেপ্টেম্বর আবেদনের ওপর শুনানির সময় নির্ধারণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

ফেসবুকে আমরা..